Sunday, মে ১৯, ২০২৪
শিরোনাম

বেড়া উপজেলা প্রশাসনের অভিযানে ১০ লাখ টাকার চায়না জাল পুড়িয়ে ধ্বংস

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

আরিফ খাঁন: সারাদেশে মা ইলিশ রক্ষার্থে ৭ অক্টোবর হইতে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত মোট ২২ দিন প্রধান প্রজনন মৌসুমে ইলিশ মাছ ধরা,পরিবহন,মজুদ,বাজারজাতকরন, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় সম্পুর্ণ নিষিদ্ধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ সরকার।
সেই ধারাবাহিকতায় মা ইলিশ রক্ষার দ্বিতীয় দিনেই পাবনা বেড়া উপজেলা প্রশাসনের অভিযানে যমুনা নদী থেকে আনুমানিক ১০ লক্ষ টাকার কারেন্ট জাল জব্দ করে জনসম্মুখে পুড়িয়ে দেয় ভ্রাম্যমান আদালত।
শনিবার (৮ অক্টোবর) বিকাল ৩ টা থেকে সন্ধা পর্যন্ত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহা. সবুর আলী
ভ্রাম্যমান আদালত সুত্রে জানা যায়, পাবনা বেড়া উপজেলার কাজিরহাট,নটাখোলা যমুনা নদীতে পানির উপরে নেট জাল দিয়ে পানির নিচে নিষিদ্ধ চায়না জাল দিয়ে মাছ শিকার করা প্রায় দশ লক্ষ টাকার জাল জব্দ করা হয়। এছাড়াও এসময় একটি ইলিশ শিকারি একজনকে আটক করা হয় পরে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বেড়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, নগরবাড়ি নৌ পুলিশের কর্মকর্তারা।
বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহা. সবুর আলী জানান, চায়না জাল দিয়ে মাছ শিকার করা সম্প‚ণরুপে নিষিদ্ধ। দেশের মৎস্য সম্পদ ধ্বংসকারী অবৈধ এ ধরনের জালের ব্যবহার বন্ধে নিয়মিতভাবে অভিযান অব্যাহত থাকবে। এছাড়াও মা ইলিশ রক্ষার্থে বেড়া উপজেলা প্রশাসন জেলেদের সচেতনতার পাশাপাশি নদী পরিদর্শন করছেন। মা ইলিশ রক্ষার্থে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

 

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

সর্বশেষ খবর