Sunday, মে ১৯, ২০২৪
শিরোনাম

ডলি সায়ন্তনীকে নির্বাচনে চান পাবনার সংস্কৃতিকর্মীরাও

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

নাছির হোসাইনঃ দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে পাবনা ২ ( সুজানগর – আমিনপুর) আসনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন ( বিএনএম) এর মনোনয়নে সংসদ সদস্য প্রার্থী ডলি সায়ন্তনীর মনোনয়ন বাতিল হওয়ায় মন ভালো নেই পাবনার সংস্কৃতিকর্মীদের। তবে, প্রার্থীতা ফিরে পেতে জনপ্রিয় এই কন্ঠশিল্পী আপিল করায় আশায় বুক বেঁধেছেন তারা।
দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে পাবনা জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মু.আসাদুজ্জামান জানান, ডলি সায়ন্তনীর বিরুদ্ধে কোন ফৌজদারি মামলা নেই। তবে, ক্রেডিট কার্ড এর ইনস্টলমেন্ট বকেয়া থাকায় তার মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। তবে, তিনি বকেয়া শোধ করে ইসিতে আপিল করেছেন বলে জানিয়েছেন। নির্বাচন কমিশন থেকে আপিল গৃহীত হলে, প্রার্থীতা ফিরে পাবেন।
এদিকে, ডলির প্রার্থীতা ফিরে পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন পাবনার সংস্কৃতি কর্মীরা। নির্বাচনে ভোটের মাঠে পাবনার এই কৃতি কণ্ঠশিল্পীর শেকড়ে ফিরে আসাকে স্বাগত জানিয়েছেন সংগীতশিল্পী কলাকুশলীরা।
পাবনা মিউজিক্যাল ব্যান্ডস এসোসিয়েশন এর সভাপতি মাহবুবুল আলম লিটন বলেন, ডলি সায়ন্তনী আমাদের পাবনার গৌরব। তিনি ও তার ভাই বাদশা বুলবুল বিশ্ববাঙালির কাছে পাবনার সংগীত অঙ্গনকে পরিচিত, সম্মানিত করেছেন। তিনি আবারও এলাকার মানুষের কাছে শিল্পীদের কাছে ফেরায় আমরা খুবই খুশি। আশা করছি তিনি প্রার্থীতা ফিরে পাবেন।
পাবনা ২ আসনের আমিনপুরের লেখক গীতিকার ও সংস্কৃতি কর্মী আলাউল হোসেন বলেন, ডলি সায়ন্তনীকে ঘিরে পাবনার সংস্কৃতি অঙ্গণে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। তিনি এলাকার মানুষ, তথা সংস্কৃতিকর্মীদের জন্য কাজ করতে চেয়েছেন। ভোটের ফলাফল যাই হোক, তাকে ঘিরে পাবনার সংগীত অঙ্গণের হারানো গৌরব ও ঐতিহ্য ফিরবে। আমরা প্রত্যাশা করি এই শিল্পী ন্যায় বিচার পাবেন।
এ বিষয়ে ডলি সায়ন্তনী বলেন, পাবনার শিল্পীরা আমার পরিবার। তাদের ভালোবাসাই আমার শক্তি। আমার মা মনোয়ারা বেগম ষাট, সত্তরের দশকে পাবনার খ্যাতিমান গায়িকা ছিলেন। সন্তান, পেশাগত ব্যস্ততায় আমি পাবনায় সময় দিতে পারি নি। এখন সন্তানরা বড় হয়েছে, আমি নিজ এলাকার মানুষের জন্য কিছু করার তগিদ থেকেই নির্বাচন করতে চেয়েছি। আশা করছি আমি নির্বাচনের সুযোগ পাবো এবং পাবনার সংস্কৃতিকর্মীদের সাথে নিয়ে একটি উৎসব মুখর ভোটে অংশ নিতে পারবো।

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

সর্বশেষ খবর