Monday, মে ২০, ২০২৪
শিরোনাম

সুজানগরে শিশু জিসানকে অপহরণ ও নির্যাতন করে হত্যার চেষ্টা

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

নিজস্ব প্রতিনিধি : পাবনার সুজানগর উপজেলার শোলাকুড়া গ্রামের জিন্নাহ মোহরীর ছোট ছেলে মো. জিসান শেখকে কিছু সন্ত্রাসীরা অপহরণ করে নিয়ে যায় গতকাল সন্ধ্যায়। তারা অভিযোগে জানান, এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী জুয়েল শেখ এবং তার ছেলে ঈশান এবং সোহান এরা অপহরণ করে জিসানকে নিয়ে যায়। একটি ঘরের মধ্যে ২/৩ ঘণ্টা আটকে রাখা হয়। এ সময়ে জিসানের উপরে একসময়ের শীর্ষ সন্ত্রাসী চাঁদাবাজ ও সর্বহারার লিডার জুয়েল শেখ এলোপাথাড়ি লাথি এবং কিল-ঘুষি মারতে থাকে। মার খেয়ে ছটফট করে চিল্লাতে থাকে জিসান এ সময় গামছা দিয়ে তার মুখ বেধে ফেলা হয়। এ সময় কান্নার শব্দ পেয়ে আশেপাশের মানুষ ছুটে আসেন এবং জিসানের বড় ভাই হাসানের কাছে এক ব্যক্তি মোবাইল করে জানান তার ভাইকে মারপিট করছে শীর্ষ সন্ত্রাসী জুয়েল এবং তার সহযোগীরা। একপর্যায়ে শীর্ষ সন্ত্রাসী জুয়েল লোহার রড, চাপাতি ও দা দিয়ে জিসানের মাথায় আঘাত করে। আঘাতে জিসানের মাথা ফেটে রক্ত বের হয়। মুহূর্তে লুটিয়ে পড়ে জিসান তবুও সন্ত্রাসীদের মারপিট থামে না। এলাকার লোকজন থামানোর চেষ্টা করলেও থামেনি ওই শিশু নির্যাতন। জিসান অজ্ঞান হয়ে পড়লে একটি দোকানের পাশে ফেলে দেয় সন্ত্রাসীরা। জিসানের বড় ভাই হাসান ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছালে তাহার উপর চওড়া হয় শীর্ষ সন্ত্রাসী জুয়েল এবং তার ক্যাডাররা হাসান কে মারপিট করেন একপর্যায়ে এলাকাবাসীর তোপের মুখে শীর্ষ সন্ত্রাসী এবং জুয়েলের ক্যাডারবাহিনী পিছু হটতে বাধ্য হয় এসময় জিসানের বড় ভাই হাসান ঘটনাস্থল থেকে অজ্ঞান অবস্থায় জিসানকে ভ্যানে করে বাড়িতে নিয়ে আসে। পরে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে পাবনা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জিসানের বড় ভাই হাসান জানান, জিসান রোববার সন্ধ্যায় পূজা দেখার জন্য পাশের গ্রাম স্বাগতা যায় এ সময় শীর্ষ সন্ত্রাসী জুয়েল ও তার ক্যাডার বাহিনী এই ১৩ বছরের ছোট্ট ছেলে জিসানকে অপহরণ করে নিয়ে যায় এবং তাকে বেধড়ক মারপিট করেছে এবং লোহার রড চাপাতি ও দা দিয়ে মাথায় আঘাতের কারণে মাথা অনেকটা গর্ত হয়ে গিয়েছে এবং সারা শরীরে অসংখ্য মারের দাগ রয়েছে।
এ বিষয়ে সুজানগর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায়।

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

সর্বশেষ খবর