Tuesday, মে ২১, ২০২৪

সুজানগরে এক বখাটের অপহরণ করে বিয়ে, অবশেষে পিটিয়ে হত্যা

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

সুজানগর প্রতিনিধি : পাবনার সুজানগরে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। বুধবার (১ এপ্রিল) দিবাগত গভীর রাতে সুজানগর পৌরসভার ভবানীপুর এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।
নিহত জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী বন বিভাগের কর্মকর্তা শামসুল আরেফিনের মেয়ে। এ ঘটনায় পুলিশ নিহত গৃহবধূর স্বামী ‘বিচ্ছু বাহিনীর’ সদস্য রাফিউল আযম রাফিকে (২৪) গ্রেফতার করেছে। তাকে বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) দুপুরে পাবনার আমলি আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।
পুলিশ ও নিহত গৃহবধূর পরিবারের সদস্যরা জানায়, বন বিভাগে চাকরির সুবাদে ২০১৩ সালে সুজানগর উপজেলায় বদলি হয়ে আসেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের মধ্যপাড়ার বাসিন্দা মো. শামসুল আরেফিন। শামসুল আরেফিনের একমাত্র মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশীকে সুজানগরের শহীদ দুলাল পাইলট বালিকা উচ্চ বিদালয়ে নবম শ্রেণীতে ভর্তি করান। সুন্দরী ও মেধাবী মেয়েটিকে ওই সময় স্কুলে যাওয়া আসার পথে এলাকার ‘বিচ্ছু বাহিনীর’ সদস্য ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী রাফিসহ অন্যরা উত্ত্যক্ত করতো। এরই একপর্যায়ে রাফি তার বাহিনীর সদস্যদের সহায়তায় ঐশ্বীকে অপহরণ করে এবং বিয়ে করে। বিয়ের পর ঐশী ২০১৭ সালে সুজানগরের শহীদ দুলাল পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসি পরীক্ষা দিয়ে গোল্ডেন এ প্লাস পায় এবং ২০১৯ সালে সুজানগরের নিজাম উদ্দিন আজগর আলী ডিগ্রি কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়ে সেবারও গোল্ডেন এ প্লাস পায়।
ঐশীর পরিবার জানায়, ভালো রেজাল্ট করার পরও পারিবারিকভাবে খারাপ এবং সন্ত্রাসী পরিবার হওয়ায় মেয়েটির ওপর শ্বশুর ও স্বামীর অত্যাচারের মাত্রা বাড়তে থাকে।
ঐশীর মা অ্যাডভোকেট সাহেরা সাঈদ বলেন, ঐশীর শ্বশুর রাজা শেখ সুজানগরের সন্ত্রাসী এবং মাতাল হিসেবে সবার কাছে পরিচিত। ওই পরিবারের লোকজনের অত্যাচারে এলাকার মানুষও অতিষ্ঠ। ঐশীকে মারধরের পর শ্বাসরোধ করে ঘরের আড়ার সঙ্গে মরদেহ ঝুলিয়ে রাখা হয়। পুলিশ, এলাকাবাসী এবং আমরা এসে শরীরের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় জখমের চিহ্ন পাই।
এ ঘটনায় নিহত ঐশীর বাবা বৃহস্পতিবার সকালে রাজা শেখ এবং তার ছেলে বিচ্ছু বাহিনীর সদস্য রাফিউল আযম রাফিকে আসামি করে মামলা করলে পুলিশ তাৎক্ষণিক রাফিকে গ্রেফতার করে।
সুজানগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বদরুদ্দোজা জানান, ওই পরিবারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও নানা অপকর্মের অভিযোগ রয়েছে। ঘটনার পরপরই পুলিশ ঐশীর স্বামী রাফিকে গ্রেফতার করেছে। রাফির বাবা রাজা শেখকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। সুরতহাল রিপোর্টে মরদেহে অসংখ্য জখমের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

সর্বশেষ খবর