Sunday, মে ১৯, ২০২৪
শিরোনাম

১৫ দিন ধরে পানিবন্দি হাজারো পরিবার, খাবার সঙ্কট

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

বিশেষ প্রতিবেদক : যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি ও টানা বৃষ্টিতে পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। উপজেলার নাগডেমড়া ইউনিয়নের ১৫টি গ্রামের প্রায় ১২শ পরিবার দীর্ঘ ১৫ দিন ধরে পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে। মানবেতর জীবনযাপন করছে এসব এলাকার মানুষ। খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সঙ্কট দেখা দিয়েছে। উপজেলা প্রশাসন গত ৮-১০ দিন ধরে চাহিদা দিয়েও এখন ত্রাণ পাচ্ছে না।
জানা গেছে, সাঁথিয়া উপজেলার নাগডেমড়া ইউনিয়নের বড় সোনাতলা, ছোট সোনাতলা,বৈরাগী সোনাতলা, হাড়িয়া, পাটগাড়ী, চিনানাড়ী, ছোট নারিন্দা, নাগডেমড়া, ছোট পাতাইলহাট, বড় পাতাইলহাট, সেলন্দা, ক্ষিদির গ্রাম, আটিয়া পাড়াসহ প্রায় ১৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। প্রতিটি বাড়িতে হাঁটু পানি। কেউ কেউ পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। আবার কেউ কেউ ঘরের সঙ্গে বাঁশের সাঁকো বেঁধে এরপর কলার ভেলা দিয়ে বাইরে এসে বিভিন্ন কাজকর্ম করছেন। পানিবন্দি হওয়ায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে এসব এলাকার অধিকাংশ মানুষ। দেখা দিয়েছে বিশুদ্ধ পানি ও খাবারের সঙ্কট।
নাগডেমড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ বলেন, আমার ইউনিয়নের ১৫টি গ্রামের প্রায় ১২শ পরিবার ১৫ দিন ধরে পানিবন্দি হয়ে আছে। এসব এলাকায় চরম দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে। মানবেতর জীবনযাপন করছে হাজারো মানুষ। তবে এখন পর্যন্ত কোনো ত্রাণ সহায়তা পাইনি। ঈদের আগে এক টন খাদ্য সামগ্রী পেয়েছিলাম। এর পাশাপাশি আমি নিজ থেকে যতটুকু সম্ভব সহযোগিতা করেছি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম জামাল আহমেদ বলেন, ৮-১০ দিন আগে ত্রাণের জন্য চাহিদা দেয়া হয়েছে। ত্রাণ পেলে সংশ্লিষ্ট এলাকায় তা বিতরণ করা হবে।
জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, আমাদের কাছে পর্যাপ্ত ত্রাণ আছে। অতিসত্ত্বর সংশ্লিষ্ট উপজেলায় ত্রাণ পৌঁছে দেয়া হবে।

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

সর্বশেষ খবর