Monday, মে ২০, ২০২৪
শিরোনাম

সাঁথিয়ায় যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

তাইজুল ইসলাম সাঁথিয়া থেকে —
লাশের গোসল ও কাফনের কাপড় পড়ানো শেষ করে খাটনিতে রেখে দেয়া হয়েছে। অপেক্ষা জানাযা। বিভিন্ন এলাকা থেকে আত্মীয় স্বজনেরা আসতে শুরু করেছে। জুমা’আ নামাজের পর জানাযা। খবর চলে গেলো পুলিশের কাছে ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের প্রস্তুতি নিচ্ছে তার ভাইয়েরা। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে জানতে পারে সে নাকি আত্মহত্যা করেছে।

শুক্রবার সকালে এমনই এক রহস্য ঘেরা হাফিজ (২০) নামে এক যুবকের আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে পাবনার সাঁথিয়ার সোনাতলা গ্রামে। সে ওই গ্রামের খন্দকার লুৎফর হোসেনর ছেলে। এ দিকে হাফিজের গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা ঘটনা নিয়ে এলাকায় চলছে নানা গুঞ্জণ। এটা হত্যা নাকি আত্মহত্যা এ নিয়েও চলছে বিশ্লেষণ স্থানীয়দের মাঝে। কেউ কেউ বলছে ফাঁসি নিলে তো ঝুলে থাকতো। কেউ কেউ বলছে লাশের পায়ে গরম পানি অথবা নির্যাতনের দাগ। এদিকে লাশের গলায় দাগ ও পা ফোলা ফোসকা পড়ার মত ক্ষত রয়েছে।

স্থানীয়সুত্রে জানা গেছে, হাফিজ ছিল অবিবাহিত পিতা-মাতাহীন এতিম। ৮ ভাইয়ের মধ্যে সে সবার ছোট। এক ভাই আমেরিকা থাকে। হাফিজ এইচ এসসি পাস করে ঢাকায় যায়। সেখানে পড়াশুনার পাশাপাশি সে চাকুরি করতো। বৃহস্পতিবার রাতে সে বাড়ি আসে।

হাফিজের ভাই হাবিব জানান, হাফিজ মাঝে মাঝেই রাতে ঢাকা থেকে বাড়ি আসতো। গত বৃহস্পতিবার রাতে বাড়িতে এসে ডাকাডাকি করে কাউকে না পেয়ে অভিমানে সে আত্মহত্যা করেছে। সকালে ঘরের সামনে বড়ই গাছে হাফিজের লাশ ঝুলতে দেখে তার ভাই হাবিব।

সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। রিপোর্ট পেলে পরবর্তী আইগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করতে এখানে চাপ দিন

সর্বশেষ খবর